ট্রাজেডি

৫০টি আবেগময় শোকের স্ট্যাটাস

আপনি আবেগময় শোকের স্ট্যাটাস খুঁজছেন।  দেখুন তো এই স্ট্যাটাস আপনার কতটুকু হৃদয়হরণ করছে।  শোক বেদনা আমাদের জীবনের সাথে জড়িত। এড়িয়ে যাওয়া আমাদের মাঝে আদৌ সম্ভবপর নয়।  জন্ম এবং মৃত্যু হয়তো প্রকৃতির বিশালতম রহস্যময় আবিষ্কার। যেন পুরাতনকে ঝেড়ে পেলে নতুনকে ঝায়গা করে দেওয়ার এক অসীম সূত্র। আজই আপনার শোকগুলোকে উক্তিতে রুপান্তর করুন এই এই পোষ্টটি পড়ে।

শোকের স্ট্যাটাস

পৃথিবী আজ মহামারীর কবলে
মানুষ ঘরবন্দি হয়েছে সংকটে
এ কী যন্ত্রনা?
এ শোকের নেই কোন সান্ত্বনা। 

ক্ষুধার যন্ত্রণা, কর্মহীন যন্ত্রণা
কারো বা একাকিত্বের যন্ত্রণা
এ কী দুর্ভিক্ষ যন্ত্রণা?
এ শোকের নেই কোন সান্ত্বনা। 

বুকের ভেতর জমতে থাকে, রঙ বাহারি ক্ষত;
চাপা শ্বাসের শোকে নিঃস্ব, সুপ্ত ইচ্ছেরা যত।
সুপ্ত ইচ্ছের আড়ালে আজও ভালোবাসা পড়ে রয় চাপা,
রঙ বাহারি ক্ষতরা তাই বন্দী আছে সেথা।

Read More:   প্রেমিকার বিয়ে নিয়ে স্ট্যাটাস

ভালোবাসাটা আজ হয়েছে নিরুত্তর
অভিমানের জ্বালা গুলো এখন হচ্ছে প্রখর। 

কর্ম ধর্মই মানুষ মানুষের রাখে অমলিন,
স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে তোমার নাম চিরদিন।
একদিন সবাইকে হতে হবে সমাধিতে বিলীন,
এই মৃত্যুর মিছিল থামার নয় কোন দিন।

জীবন দীপ নিভে গেল, 
মরণ অবেলার শেষে। 
মরণ ব্যাধি গ্রাস করে,
নিয়তির খেলার পরিহাসে। 

বুকের ভেতর জমতে থাকে, রঙ বাহারি ক্ষত;
চাপা শ্বাসের শোকে নিঃস্ব, সুপ্ত ইচ্ছেরা যত।

সজল নয়নে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানাই
শোকাহত বেশে,
সকলের মাঝে ভালো থেকো তারাদের দেশে।

কোন দিন ও থামিবে না এই মৃত্যুমিছিল, 
মুনি, ঋষি সব একি পথের সামিল।
দিনান্তের শেষে নীলাম্বরে সূর্য ঢলে অস্তানীল,
চিরন্তন সত্যের খাতায় ঋষি হয় বিলীন।

Read More:   কষ্টের কিছু কথা ভালোবাসার, প্রেমের কষ্টের স্ট্যাটাস

ইচ্ছেদের ধমনীতে আজ শুধুই নীল রক্তের স্রোত,
ক্ষত বুকে আজও জমে, স্মৃতির ধূসর পাহাড়  যত।

যারা চলে যায় তারা আর ফেরেনা;
শুধু রেখে যায় একগুচ্ছ স্মৃতির বেদনা।
শোকতপ্ত মন ছটফট, অকালে ই গমনে বাহানা;
হোঁচটে ক্ষত বারংবার, রক্তাক্ত স্বপ্নের সীমানা। 

বুকের ভেতরটা মোচড় দিচ্ছে, কি লিখবো ঠিক জনিনা
তুমি আজীবন থেকে যাবে হৃদয়ের গহীনে, 
তোমার ‘বেলা-শেষ’ এ কথা মানিনা ! 

হয়তো চিরজীবন কেউই থাকে না, এটাই বাস্তব যে ‘জন্মিলে মরিতে হবে’ তবু মানুষের মৃত্যু এতটা শোক উপহার দিতে পারে তা বোধহয় চলে যাওয়ার পর বোঝা যায় বেশি ।

উজ্জল নক্ষত্র চিরকাল,
প্রজ্জ্বলিত থাকে আকাশে।
তুমিও রবে মনের মণিকোঠায়, 
হৃদয়ের ক্যানভাসে। 

আবেগের দীর্ঘশ্বাসে বাঁচে বিরক্তিকর স্মৃতিচারণ,
অবহেলিত মন খোঁজে একাকীত্বের নির্বাসন।
অনুভূতির উৎকন্ঠায় শোকাভিভূত পথ নির্ধারণ,
অশ্রুসজলে ছোঁয় শীতলতা বুকচাপা নিদর্শন।

তুমি দেখেছো, ভালোবাসা গুলো ক্ষতের তালিকায় অব্যাহত…
আমি জেনেছি, বিশ্বাসের প্রতিটি বিন্দু অবিশ্বাসে’ই শোকাহত।

যতোবারই ভাবি ভুলে যাবো তোমায়, 
সরিয়ে নেব মনের আয়না। 
ভুল ছিল সে মনের ভাবনা আমার, 
তোমায় সত্যিই ভোলা যায় না। 

যতবার ভাবি ভুলে যাবো সকল স্মৃতি, 
মুছে ফেলবো তোমার দেওয়া অনুভূতি।
ভোলা যাবে না জানি তোমার ব্যক্তিত্ব;
স্মৃতির অন্তরালে লুকানো তোমার অস্ত্বিত্ব।

হয়তো বৃষ্টি এসেছিল, 
অবসন্ন মেয়েটির ক্ষতবিক্ষত হৃদয়ের পৃষ্ঠতলে এঁকে যাওয়া প্রেমিকের পদচিহ্ন মুছিয়ে দিতে;
হয়তো বৃষ্টি এসেছিল, 
বাকরুদ্ধ এলোকেশী মেয়েটির চোখের ঐ ছড়ানো কাজল এলোমেলো করে দিতে।

সেই স্মৃতির ধূসর ক্ষেতে,
আজ নিকোটিনের জীবনগ্রাসী আস্তরণ;
সত্যিই মনটা বড়ই বোকা ছিল রে,
তাই তোকে নিজের ভেবে স্বপ্ন দেখছিল অকারণ

সময়ের ফাঁকি, ছলছল আঁখি
রাখীতে ভাই তুই কই..?
জীবাশ্মে খুঁজি, যেন স্মৃতিরা শশী-
আঁধারের পথে একা জেগে রই!!

একাকী গেলি চলে, কোন ধরা তলে-
বন্ধনে ছিল গরমিল বুঝি?
আকন্ঠ করি পান আজ এ শোক সুরা, 
এই পূর্ণিমা যেন শাওনের নিশি। 

ইচ্ছে যতই চেষ্টা করুক ডানা মেলে ওড়ার
ব্যর্থ স্বপ্ন মনে করায় কিছুই নেই করার।।

যাও হে বন্ধু,
গিয়ে ভালো থেকো 
না ফেরার দেশে

তুমি তো বাঁচার গল্প বলতে 
তোমার প্রাপ্য ছিলনা
এই পরিণাম অবশেষে

তাদের নদীতীরে যাত্রী এসে একটু হিল্লোল হোক,
ঘিরেছে যাদের স্তব্ধতা, রাত জুড়ে দুঃখ-শোক।

স্বজন হারানোর পর বোঝা যায় যে সে কতটা “স্বজন ছিল”

মৃত্যুর উদ্দাম নৃত্য! যাত্রা শেষের গান…
গনচিতার উদগ্র উল্লাসে মুখরিত শ্মশান!
পবিত্র গঙ্গাবক্ষে ভেসে যায় লাশ!
কান পেতে শোনো মানবতার দীর্ঘশ্বাস!
শবের লোভে শকুনেরা নিশি জাগে…
চেনা পৃথিবীটা আজ বড় অচেনা লাগে!

মৃত্যু নিয়ে আবেগময় শোকের স্ট্যাটাস

মৃত্যুকে কথা দিয়েছিলাম,

তুমি যখনই আসোনা কেন
আমি তোমাকে গ্রহণ করবো।

তোমার হাতে হাত রেখে নিরূদ্দেশে যেতে আমার ক্ষীণ আপত্তি থাকবে না
এমনকি প্রিয়তমর ঠোঁটে ঠোঁট মেলাবার সময় ও যদি তুমি আসো,
আমি সব ভুলে কেবল তোমাকেই গ্রহণ করবো।

এরপর কেটে গেল কয়েকটি বছর, কিন্তু মৃত্যু আসেনি।সে শুধু দূর থেকে ডেকে যায়। বসন্তের কোকিলের মতো দূর থেকে ডেকে যায়, বাঁশের চিকন কঞ্চি তে বসে শীষ দেয়,বিরহ বেদনার গান গায়। কিন্তু আসেনা।

তাহলে কি মৃত্যু ও আমাকে ভুলে চলে গেল। যেভাবে ভুল বুঝে চলে গেছে প্রিয়জন, প্রাণের অস্তিত্বের সাথে মিশে থাকা আপনজন।

তবু ও আমি ক্রমশই অপেক্ষা করছি মৃত্যু আসুক। আমার এই অপেক্ষার কোন অন্ত নেই। সত্যিই মৃত্যু আসুক।জলের ছোঁয়া পেয়ে যেন মিলিয়ে না যায়।

লিখিকা : শান্তনা বিশ্বাস। এই ধরণের আরো পোষ্ট পেতে আমাদের ফেজবুকে ফেজ এ লাইক দিয়ে সাথে থাকুন।

Back to top button