সরকারী সেবা

সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক করার নিয়ম

আপনি বর্তমানে যে সিম কার্ডটি ব্যবহার করছেন, সেটি কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা আছে। সে সম্পর্কে আপনার অবশ্যই জেনে নিতে হবে। এর পাশাপাশি যদি কোন কারণে আপনার ব্যবহার করা সিম কার্ডটি হারিয়ে যায়। তাহলে কিন্তু তাৎক্ষণিক ভাবে আপনাকে সেই সিম টি বন্ধ করে দিতে হবে। সেক্ষেত্রে কিন্তু আপনাকে সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক করে নিতে হবে।

কিন্তু আপনি যদি না জেনে থাকেন যে, আপনার সেই সিম টি কার নাম অথবা ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। তাহলে কিন্তু আপনি বেশ বিপাকে পড়ে যাবেন। আর আপনি যেন এই ধরনের বিপাকে পড়ে না যান। সেই কারণেই মূলত আজকের এই আর্টিকেল টি লেখা হয়েছে।কেননা আজকের আর্টিকেলে আমি আপনাদের দেখাবো যে, কিভাবে আপনি আপনার নিজের ব্যবহার করা সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক (Sim registration check) করবেন।

আর আপনি যদি সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক সম্পর্কিত অজানা বিষয় গুলো সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে চেষ্টা করবেন আজকের এই পুরো আর্টিকেল টি মনোযোগ সহকারে পড়ার। যদি আপনি আজকের এই পুরো আর্টিকেল টি পড়েন। তাহলে আপনার মনে আর সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক নিয়ে কোন ধরনের অজানা বিষয় থাকবে না। তাহলে আর দেরি না করে চলুন সরাসরি মূল আলোচনায় ফিরে যাওয়া যাক।

সিম নিবন্ধন যাচাই | Sim Registration Check

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন, যারা জানতে চায় যে তার নিজের নামে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা আছে। কারণ বিভিন্ন সময়ে আপনার সিম নিবন্ধন যাচাই করার প্রয়োজন হয়ে থাকবে। তবে আপনি চাইলে ভিন্ন ভিন্ন পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধন যাচাই করে নিতে পারবেন। যেমন ধরুন, প্রথমত আপনি আপনার মোবাইলে একটি কোড ডায়াল করলেই সিম নিবন্ধন যাচাই করে নিতে পারবেন। 

আবার আপনি চাইলে সরাসরি কাস্টমার কেয়ারে গিয়ে আপনার সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক করে নিতে পারবেন। তবে আপনার সুবিধার জন্য আমি নিচে দুইটি পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। আপনি আপনার সুবিধা মতো যে কোনো একটি পদ্ধতি অনুসরণ করে সিম নিবন্ধন যাচাই করে নিতে পারবেন।

কোড ডায়াল করে সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক

আপনি চাইলে খুব সহজেই একটি কোড ডায়াল করার মাধ্যমে আপনার যেকোন সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক করে নিতে পারবেন। সেজন্য আপনাকে আপনার যে কোনো একটি সচল সিম থেকে *16001# ডায়াল করতে হবে। যখন আপনি এই কোডটি ডায়াল করবেন। তখন আপনাকে পরবর্তী রিপ্লে অপশন দেয়া হবে। সেই অপশনে আপনাকে আপনার এন আই ডি কার্ড এর শেষের চারটি ডিজিট টাইপ করে সেন্ড করে দিতে হবে।

যখন আপনি আপনার এনআইডি কার্ড এর শেষের 4 ডিজিট টাইপ করার পর সেন্ড করবেন। তারপর আপনাকে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতে হবে। এরপরে আপনাকে একটি ফিরতি এসএমএস দেয়া হবে। এবং সেই এসএমএসের মধ্যে আপনি এর আপনার স্মার্ট কার্ড দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। সেই সিমের নম্বর গুলোর শেষের 3-digit দেখতে পারবেন।

কাস্টমার কেয়ারে গিয়ে সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক

আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে মোট কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। সেটি জানার জন্য আপনি যদি উপরের কোড ডায়াল করেন। সেক্ষেত্রে আপনি শুধুমাত্র রেজিস্ট্রেশন করা সিমের নম্বর গুলোর শেষের তিনটি সংখ্যা দেখতে পারবেন। কিন্তু এই পদ্ধতিতে আপনি সেই সিমের পুরো নম্বর গুলো দেখতে পারবেন না। কিন্তু আপনি যদি সম্পূর্ণ নাম্বারটি দেখতে চান। তাহলে আপনাকে সরাসরি কাস্টমার কেয়ারে যেতে হবে।

যখন আপনি সরাসরি কাস্টমার কেয়ারে যাবেন। তখন আপনার এন আইডি কার্ডটি তাদেরকে দিতে হবে। এবং কাস্টমার কেয়ার থেকে আপনাকে সেই সিমের পুরো নম্বরটি দেখিয়ে দিবে। যে নম্বর গুলো মূলত আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। 

তবে এখানে একটা কথা বলে রাখা উচিত যে, আপনি যদি গ্রামীণফোন কাস্টমার কেয়ারে যান। তাহলে কিন্তু শুধুমাত্র গ্রামীণফোনের নম্বর গুলো দেখতে পারবেন। অন্য কোনো অপারেটরের নম্বর দেখতে পারবেন না। ঠিক তেমনি ভাবে আপনি যদি রবি কিংবা বাংলালিংক কাস্টমার কেয়ারে যান। তাহলে শুধুমাত্র সেই অপারেটর এর নম্বর গুলো দেখতে পারবেন। এর বাইরে অন্যান্য অপারেটর এর সিমের নম্বর দেখতে পারবেন না।

সিমের রেজিস্ট্রেশন পরিবর্তন

আপনি যদি উপরের দুইটি পদ্ধতি সঠিক ভাবে অনুসরণ করতে পারেন। তাহলে আপনি খুব সহজেই সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক করে নিতে পারবেন। কিন্তু পরবর্তী সময়ে যদি আপনার কোন সিমের রেজিস্ট্রেশন এর মালিকানা পরিবর্তন করার প্রয়োজন হয়ে থাকে। তাহলে কিন্তু আপনাকে বিশেষ একটি উপায় অনুসরণ করতে হবে। যেমন ধরুন, আপনার ব্যবহার করা সিম টি আপনার বাবার এনআইডি কার্ড দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা আছে। কিন্তু এখন আপনি চাচ্ছেন সেই রেজিস্ট্রেশন আপনার নিজের এনআইডি কার্ড দিয়ে করতে। এক্ষেত্রে কিন্তু আপনাকে সেই পদ্ধতিটি অনুসরণ করে পড়তে হবে।

সেজন্য আপনাকে নিজের এনআইডি কার্ড সহ যে ব্যক্তির নামে পূর্বে সেই সিম টি রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছিল। সেই ব্যক্তির এনআইডি কার্ড সহ সরাসরি কাস্টমার কেয়ারের যেতে হবে। এবং কাস্টমার কেয়ারে যাওয়ার পর আপনি যে আপনার সিমের রেজিস্ট্রেশন পরিবর্তন করতে চাচ্ছেন। সে সম্পর্কে কাস্টমার কেয়ারে কর্মরত ব্যক্তিদের জানিয়ে দিতে হবে। আর তারপরে কি কি করতে হবে সেটা সেই কাস্টমার কেয়ারে কর্মরত ব্যক্তির আপনাকে জানিয়ে দিবে। এবং এই পদ্ধতির মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই সিমের রেজিস্ট্রেশন পরিবর্তন করতে পারবেন।

সিমের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করার নিয়ম

মনে করুন, আপনি সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক করার পর দেখতে পেলেন যে। আপনার এনআইডি কার্ড দিয়ে এমন একটি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। যেটা আপনি নিজে থেকে রেজিস্ট্রেশন করেন নি। তাহলে কিন্তু আপনাকে তাৎক্ষণিক ভাবে সেই সিমের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করে নিতে হবে। 

কেননা একজন অসৎ ব্যক্তি যদি আপনার এনআইডি কার্ড দিয়ে সিম রেজিস্ট্রেশন করে থাকে। তাহলে কিন্তু আপনাকে নানা প্রকার সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। আর সে কারণেই মূলত খুব দ্রুততার সাথে আপনার সেই সিম রেজিস্ট্রেশন বাতিল করে নিতে হবে।

তবে আপনি চাইলে খুব সহজেই আপনার এনআইডি কার্ড দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা সিমের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করে দিতে পারবেন। এজন্য আপনাকে মোট দুইটি পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। প্রথমত আপনি সিমের হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে সরাসরি সিমের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করতে পারবেন। অথবা আপনি যদি সরাসরি কাস্টমার কেয়ারে যান। তাহলেও কিন্তু সেখান থেকে আপনার এনআইডি কার্ড দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা সিমের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করে দিতে পারবেন।

সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক নিয়ে কিছু কথা

যদি আপনি আপনার এনআইডি কার্ড দিয়ে সিম রেজিস্ট্রেশন করে থাকেন। তাহলে কিন্তু সেই সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক করা আপনার একান্ত কর্তব্যের মধ্যে পড়ে। কারন আপনার এনআইডি কার্ড দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। এবং আপনার এনআইডি কার্ডের মাধ্যমে অন্য কেউ অসৎ উপায়ে সিম রেজিস্ট্রেশন করেছে কিনা। সে সম্পর্কে অবগত হওয়া আপনার জন্য অনেক জরুরী একটি বিষয়।

আর এই বিষয় গুলো নিয়ে আজকের আর্টিকেলে আমি বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আশা করি এই আলোচিত আলোচনা গুলো জানার পরে। আপনার সিমের রেজিস্ট্রেশন চেক নিয়ে আমার কোন অজানা বিষয় থাকবেনা। আর এমন সব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেতে হলে অবশ্যই আমাদের সাথে থাকবেন।

Nironjon Roy

হ্যালো পাঠক, আমি Roy. আমি দীর্ঘদিন থেকে বাংলা কন্টেন্ট রাইটিং এর কাজ করে আসছি। আমি যথাযথ চেস্টা করি নিজের জ্ঞানটুকু অন্যের মাঝে বিলিয়ে দেয়ার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button