টেলিকমসরকারী সেবা

NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে

যদি আপনি একজন সচেতন নাগরিক হয়ে থাকেন। তাহলে অবশ্যই আপনার মনে কোনো না কোনো সময়ে এই প্রশ্নটি জেগে থাকবে যে। আমার nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে। আর যদি আপনার একটি ভোটার আইডি কার্ড থাকে। এবং আপনি যদি বাংলাদেশের নাগরিক হয়ে থাকেন। তাহলে অবশ্যই আপনার জেনে নেওয়া উচিত যে, আপনার nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে। কেননা আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে যদি কেউ গোপনে সিম রেজিস্ট্রেশন করে, এবং সেই সিম দিয়ে যদি কোন অপরাধ মূলক কাজ করে। তাহলে আপনি একটা সময়ে নানা ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হবেন। আর সে কারণেই মূলত আপনার nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে। সে সম্পর্কে জেনে নেয়াটা আমাদের জন্য ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

আজকের এই গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল থেকে আপনি জানতে পারবেন, আপনার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে। আর আপনি যদি সে সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে জানতে চান। তাহলে আজকের এই আর্টিকেল টি আপনার জন্য অনেক বেশি হেল্পফুল হবে। কেননা আজকে আমি আপনার nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে। সে সম্পর্কের যে সমস্ত বিষয় আছে, সেই বিষয় গুলো সম্পর্কে বিশদভাবে আলোচনা করব। তাই চেষ্টা করবেন আজকের পুরো আর্টিকেল টি মনোযোগ সহকারে পড়ার। চলুন এবার তাহলে সরাসরি আলোচনা তে ফিরে যাওয়া যাক।

nid দিয়ে সিম রেজিস্ট্রেশন কাকে বলে?

অতীতের দিন গুলোতে আমরা যখন কোন সিম ব্যবহার করতাম। তখন কিন্তু সেই সিম গুলো ব্যবহার করার জন্য কোন প্রকার রেজিস্ট্রেশন করার প্রয়োজন হতো না। বরং আমরা শুধুমাত্র দোকানে গিয়ে টাকা দিতাম আর সেই দোকান থেকে একটা সিম কিনে ব্যাবহার করতে পারতাম। কিন্তু বর্তমান সময়ে বাংলাদেশ এর তথ্য ও যোগাযোগ মন্ত্রনালয় থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে। একজন ব্যক্তি যদি সিম ব্যবহার করতে চায়। তাহলে অবশ্যই সেই ব্যক্তি কে জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে সিম রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এবং তারপর এই সেই ব্যক্তি উক্ত সিম ব্যবহার করতে পারবেন। আর সে কারণেই মূলত বর্তমান সময়ে বিভিন্ন অপারেটরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, একজন ব্যক্তি তার নিজের জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে সর্বোচ্চ 10 থেকে 15 টা সিম রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

Read More:   Nid Registration | Nid Card যাচাই করার নিয়ম

nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে (যাচাই করুন)

প্রিয় পাঠক, এবার আমি বলবো, আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে, সেটা কিভাবে যাচাই করবেন। মূলত আপনি খুব সহজেই আপনার ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে সে সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন। তবে সেজন্য আপনাকে বিশেষ কয়েকটি পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। যেমন, প্রথমত আপনি আপনার মোবাইল ফোনের ডায়াল অপশন থেকে চেক করে নিতে পারবেন। আবার আপনি চাইলে এসএমএস এর মাধ্যমে আপনার ভোটার আইডি দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে। সে সম্পর্কে যাচাই করে নিতে পারবেন। আর নিচে আমি এই সব গুলো পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। তাই অবশ্যই নিচের আলোচিত আলোচনা গুলো একটু মনোযোগ সহকারে দেখবেন।

ডায়াল করে চেক করার নিয়ম-১

যদি আপনি জানতে চান যে, আপনার nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে। তাহলে আপনি আপনার মোবাইল ফোনের ডায়াল অপশন থেকে খুব সহজেই এই বিষয়টি সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন। তবে আপনি যদি এই অপশনের মাধ্যমে আপনার ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে সে সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে আপনাকে বেশ কিছু ধাপ অনুসরণ করতে হবে। চলুন এবার সেই ধাপ গুলো সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

  1. প্রথমত আপনার মোবাইলে একটি সচল সিম থাকতে হবে।
  2. এরপর আপনি সরাসরি আপনার মোবাইল ফোনের ডায়াল অপশনে যাবেন।
  3. তারপর আপনাকে *16001# এই নাম্বার ডায়াল করতে হবে।
  4. যখন আপনি উপরোক্ত নাম্বারে ডায়াল করবেন। তখন আপনার ফোনে  আরো একটি রিপ্লে করার অপশন দেখতে পারবেন।
  5. এই অপশনে আপনাকে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের তথ্য দিতে হবে।
  6. মূলত এখানে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র থাকা নাম্বারের শেষের আটটি ডিজিট আপনাকে টাইপ করে বসিয়ে দিতে হবে।
  7. যখন আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ডের শেষের 8 টি ডিজিট  বসিয়ে দিবেন। তখন আপনাকে সেন্ড অপশনে ক্লিক করতে হবে।
Read More:   জাতীয় পরিচয় পত্র নিয়ে প্রশ্ন ও উত্তর

যদি আপনি উপরের তাই কয়েকটি ধাপ সঠিক ভাবে অনুসরণ করতে পারেন। তাহলে আপনাকে কিছুটা সময় অপেক্ষা করা প্রয়োজন পড়বে। এবং কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর আপনার ফোনে একটি এসএমএস আসবে। আর সেই এসএমএস এর মাধ্যমে আপনি জেনে নিতে পারবেন যে, আপনার nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে।

ডায়াল করে চেক করার নিয়ম-২

প্রিয় পাঠক, যদি আপনার উপরের পদ্ধতি টি একটু কঠিন বলে মনে হয়। তাহলে এবার আমি আপনাকে ডায়াল অপশনের মাধ্যমে চেক করার সবচেয়ে সহজ একটি উপায় বলে দিব। যে উপায় টি অনুসরণ করে আপনি খুব সহজেই জেনে নিতে পারবেন যে, আপনার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। 

মূলত এই পদ্ধতি তে আপনি পুনরায় আপনার ফোনের ডায়াল অপশন এ যাবেন। এবং সেখানে গিয়ে টাইপ করবেন *16001*. এটি টাইপ করার পরে আপনি আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রে থাকা সবার শেষের 4 ডিজিট বসিয়ে দিবেন। এবং এরপরে টাইপ করে ডায়াল করে দিবেন। যেমন, *16001*Last 4 Digit#. আর এভাবে ডায়াল করার পরে আপনাকে কিছুক্ষণ সময় কতটা পড়তে হবে তারপর আপনার ফোনে একটি এসএমএস এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে যে আপনার ভোটার আইডি দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে।

Read More:   Nid - National identity Card | জাতীয় পরিচয় পত্র

মেসেজের সাহায্য চেক করার নিয়ম

আপনি চাইলে ডায়াল করে চেক করার পাশাপাশি আপনার ফোন থেকে মেসেজের মাধ্যমে বিষয়টি সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন। তবে আপনি যদি মেসেজের মাধ্যমে জানতে চান যে, আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। তাহলে আপনাকে খুব সহজ একটা পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। যে পদ্ধতির মাধ্যমে আপনি খুব দ্রুততার সাথে জেনে নিতে পারবেন যে। আপনার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। চলুন এবার তাহলে সে সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

তো আপনি যদি এই বিষয়টি এসএমএসের মাধ্যমে চেক করে নিতে চান। তাহলে সবার আগে আপনার ফোনে একটি সচল সিম থাকতে হবে। তারপরে আপনাকে মেসেজ অপশনে যেতে হবে। এবং সেই মেসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করতে হবে (Last 4 Digit of your NID). যখন আপনি আপনার মোবাইল ফোন থেকে এই মেসেজটি টাইপ করবেন। তখন আপনাকে 16001 নাম্বারে মেসেজটি পাঠিয়ে দিতে হবে। আর যখন আপনি এই নাম্বারে এসএমএস পাঠিয়ে দিবেন। তার কিছুক্ষণ পরেই আপনাকে ফিরতি মেসেজে জানিয়ে দেওয়া হবে যে, আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। এবং সেই নাম্বার গুলো কি কি।

সিম রেজিস্ট্রেশন নিয়ে কিছু কথা

প্রিয় পাঠক, যদি আপনি আপনার ব্যক্তিগত জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে কোন সিম রেজিস্ট্রেশন করে থাকেন। তাহলে অবশ্যই আপনাকে চেক করে নিতে হবে যে আপনার সেই nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। আর কি ভাবে আপনি এই বিষয়টি চেক করবেন। সে পদ্ধতি গুলো নিয়ে আজকের আর্টিকেলে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি এই আলোচিত আলোচনা গুলো থেকে আপনি খুব সহজেই এই বিষয়টি সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন।

Nironjon Roy

হ্যালো পাঠক, আমি Nironjon Roy. আমি দীর্ঘদিন থেকে বাংলা কন্টেন্ট রাইটিং এর কাজ করে আসছি। আমি যথাযথ চেস্টা করি নিজের জ্ঞানটুকু অন্যের মাঝে বিলিয়ে দেয়ার। আমার সাথে যোগাযোগ করতেঃ https://www.facebook.com/fx.nironjonbd

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button