ব্যাংকিং

নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে করনীয় কি?

বর্তমান সময়ে মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহারকারীর মধ্যে নগদ মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহারকারীর সংখ্যাও কম নয়। কেননা আজকের দিনে টাকা লেনদেন করার জন্য নগদ মোবাইল ব্যাংকিং এর চাহিদা ব্যাপক পরিমাণে বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে যদি কোনো কারণবশত আপনি আপনার নগদ একাউন্টের পিন ভুলে যান, সে ক্ষেত্রে আপনাকে আসলে কি কি করতে হবে সে বিষয় গুলো কিন্তু এখনো অনেক মানুষের কাছেই অজানা রয়েছে। আর আজকের আর্টিকেলটি মূলত সেই উদ্দেশ্যেই লেখা হয়েছে, কারন আজকের এই আর্টিকেল থেকে আপনি জানতে পারবেন যে নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে করণীয় কি। চলুন তাহলে এবার সরাসরি মূল আলোচনায় ফিরে যাওয়া যাক।

যদি আপনি আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় নগদ একাউন্টের দেয়া পিন ভুলে যান, সে ক্ষেত্রে আপনাকে বেশ কিছু ধাপ অতিক্রম করতে হবে। আর আপনি যদি সেই ধাপ গুলো সঠিক ভাবে অতিক্রম করতে পারেন। তাহলে আপনি খুব সহজেই নগদ একাউন্টের ভুলে যাওয়া পিন কে পুনরায় ফিরিয়ে আনতে পারবেন। 

এবং সেই পিন কোড ভুলে যাওয়া একাউন্টটি তে নতুন পিন কোড দিয়ে পুনরায় সেই নগদ একাউন্ট থেকে চালু করে নিতে পারবেন। তবে জানার বিষয় হল যে এমন কোন কোন পদ্ধতি আছে যেগুলোর মাধ্যমে পিন কোড ভুলে যাওয়ার নগদ একাউন্টে গিয়ে পুনরায় সচল করা যায়। যদি আপনি এই পদ্ধতি গুলো সম্পর্কে জানতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে নিচের আলোচনা গুলো মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে।

নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে করণীয় কি?

যদি কোন দুর্ঘটনাবশত আপনি আপনার টাকা লেনদেন করার নগদ একাউন্টে দেয়া পিন কোড ভুলে যান সে ক্ষেত্রে আপনি মোট দুইভাবে আপনার ভুলে যাওয়া নগদ একাউন্ট কে পুনরায় সচল করতে পারবেন। নিচে আমি এই দুটি পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। আপনি চাইলে যেকোন একটি পদ্ধতির মাধ্যমে আপনার ভুলে যাওয়া পিন কোড এর নগদ একাউন্ট পুনরায় সচল করে নিতে পারবেন। চলুন এবার তাহলে সেই পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

০১| ইউএসএসডি কোডের মাধ্যমে

আপনি যদি কোন প্রকার অ্যাপ ছাড়াই আপনার পিন কোড ভুলে যাওয়ার নগদ একাউন্টে গিয়ে সচল করে নিতে চান, সেক্ষেত্রে আপনাকে বেশ কিছু ধাপ অনুসরণ করতে হবে। নিচে আমি সেই ধাপ গুলো পর্যায়ক্রমে আলোচনা করলাম।

  1. সবার আগে আপনাকে আপনার ফোনের ডায়াল অপশনে যেতে যেতে হবে। এবং সেখানে গিয়ে টাইপ করতে হবে *167#
  2. উপরোক্ত ইউএসএসডি কোড ডায়াল করার পরে আপনার সামনে বেশ কিছু অপশন চলে আসবে এখন আপনাকে রিপ্লাই অপশন থেকে “8” সিলেট করতে হবে।
  3. যখন আপনি রিপ্লেতে উপরের অপশনটি সিলেক্ট করবেন, তখন আপনার সামনে আরো বেশকিছু অপশন চলে আসবে। তো এবার উপরে আপনি দেখতে পারবেন “পিন ভুলে গেছেন”- নামক একটি অপশন, সেজন্য পুনরায় আপনাকে রিপ্লে অপশনে “1” সিলেক্ট করতে হবে।
  4. এরপর আপনাকে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের কিছু তথ্য প্রদান করতে হবে। তো আপনি আপনার নগদ একাউন্টে যে জাতীয় পরিচয় পত্রের মাধ্যমে চালু করেছিলেন সেই জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বরটি টাইপ করে রিপ্লে দিতে হবে।
  5. জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর দেয়ার পরে উক্ত জাতীয় পরিচয় পত্রে যে জন্ম তারিখ এবং সাল দেওয়া আছে, সেটি আপনাকে এর পরবর্তী অপশনে টাইপ করে সিলেক্ট করতে হবে।
  6. এর পরবর্তী অপশনে আপনাকে জিজ্ঞেস করা হবে যে আপনি গত 90 দিনে নগদ একাউন্ট এ কোন ধরনের ট্রানজেকশন করেছেন কি না। তো আপনি যদি উক্ত একাউন্টের মাধ্যমে টাকা লেনদেন করে থাকেন তাহলে “Yes” অপশনে ক্লিক করবেন, আর যদি লেনদেন না করে থাকেন তাহলে আপনাকে “No” অপশন সিলেক্ট করে দিতে হবে।
  7. যদি আপনি গত 90 দিনে কোন ধরনের লেনদেন করে থাকেন তাহলে গত 10 দিনে আপনি আসলে একই ধরনের লেনদেন করেছেন সেটা আপনাকে সিলেক্ট করে দিতে হবে।
  8. এরপর আপনাকে লেনদেনের পরিমাণ সম্পর্কে বলতে হবে অর্থাৎ আপনি কি পরিমাণ টাকা লেনদেন করেছেন সেটি আপনাকে উল্লেখ করে পুনরায় রিপ্লে দিতে হবে।

তবু যদি আপনি উপরোক্ত ধাপগুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করতে পারেন, তাহলে আপনার ফোনে একটি টেম্পোরারি পিন কোড আসবে। এবং সেই পিন কোড টি ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনি আপনার ভুলে যাওয়া নগদ একাউন্ট পুনরায় সচল করে নিতে পারবেন। তবে জানার বিষয় হল যে কিভাবে সেই টেম্পোরারি পিন কোড এর মাধ্যমে আপনি আপনার নগদ একাউন্টের পিন কোড রিসেট করবেন। তো চলুন এবার তাহলে সে সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

Nagad Account Pin Reset

উপরের আলোচনায় আমি ভুলে যাওয়া নগদ একাউন্টের পিন রিসেট করার প্রথম ধাপ সম্পর্কে আলোচনা করেছি। এবার আমি দেখাবো যে কিভাবে আপনি পিন ভুলে যাবার নগদ একাউন্টের টেম্পোরারি কোডের মাধ্যমে নতুন পিন সেটআপ করবেন।

  1. এবার পুনরায় আপনাকে ডায়াল অপশনে যেতে হবে এবং সেই অপশনে গিয়ে *167# ডায়াল করতে হবে।
  2. এর পর পুনরায় আপনাকে রিপ্লে অপশনে গিয়ে টাইপ করতে হবে এবং এরপরে যে অপশন টি আসবে সেখানে পিন রিসেট নামের আরেকটি অপশন দেখতে পারবেন। সেখানে আপনাকে রিপ্লেতে “2” টাইপ করতে হবে।
  3. এরপরে আপনি যে টেম্পোরারি পিন কোড টি পেয়েছিলেন সেটি প্রদান করবেন এবং সেই টেম্পোরারি পিনকোড প্রদান করার পরে আপনি পুনরায় নতুন সেটাপ করতে পারবেন।

আপনি যদি উপরের এই তিনটি ধাপ সঠিকভাবে অনুসরণ করেন তাহলে আপনার অ্যাকাউন্টের ভুলে যাওয়া পিন কোড টি পুনরায় সেট করতে পারবেন। এবং আপনার নগদ একাউন্টের মাধ্যমে আবার টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

নগদ অ্যাপ থেকে পিন রিসেট করার উপায়

যদি আপনি একজন নগদ অ্যাপ ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন তাহলে খুব সহজেই আপনি আপনার ভুলে যাওয়া নগদ একাউন্টের পিন কোড কে এডিট করতে পারবেন। তবে সেজন্য আপনাকে মাত্র কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করতে হবে। চলুন এবার সেই ধাপ গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

  1. প্রথমত আপনাকে আপনার নগদ অ্যাপ এর মধ্যে প্রবেশ করতে হবে এবং সেই অ্যাপে প্রবেশ করার পরে আপনাকে “পিন ভুলে গিয়েছেন”- নামক অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  2. এর পরবর্তী ধাপে আপনাকে নগদ হেলপ্লাইন এ কল করতে হবে সেজন্য আপনি সরাসরি 16167 09609616167 নম্বরে ডায়াল করতে পারবেন অথবা এই নম্বরে ডায়াল করে আপনার পরিচয় নিশ্চিত করতে পারবেন।
  3. এরপর সেখান থেকে আপনাকে একটি চার ডিজিটের কোড দেওয়া হবে। সেই কোডের মাধ্যমে আপনি নগদ অ্যাপ এ যাচাই করুন অপশনে প্রদান করতে হবে।
  4. যখন আপনি ওই চার ডিজিটের কোড টি প্রদান করবেন, তখন আপনাকে পিন রিসেট করার একটি অপশন দেয়া হবে। এবং সেই অপশনে আপনি পুনরায় আপনার নগদ একাউন্টের জন্য নতুন পিন সেট আপ করতে পারবেন।

তো যদি আপনি উপরের এই দুটি পদ্ধতি অনুসরণ করেন তাহলে আপনি আপনার নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে খুব সহজেই সেই ভুলে যাওয়া পিনকে রিসেট করতে পারবেন। এবং পুনরায় আপনার নগদ একাউন্ট সচল করে আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী লেনদেন করতে পারবেন।

আমাদের শেষকথা

প্রিয় পাঠক বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠানের নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে আপনার করণীয় কি সেই বিষয় নিয়ে আজকে আমি বিস্তারিত আলোচনা করেছি। মূলত নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে আপনি মোট 2 টি পদ্ধতির মাধ্যমে আপনার সেই নগদ একাউন্টে পুনরায় সচল করে নিতে পারবেন। এবং আপনি আপনার প্রয়োজনীয় লেনদেন গুলো সম্পন্ন করতে পারবেন।

আশা করি নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে করণীয় কাজ গুলো আপনি খুব ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন। তবে এর পরবর্তী সময়ে যদি আপনার কোন সমস্যা হয় তাহলে অবশ্যই এই পোষ্টের নিচে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন। আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করব আপনার সমস্যার সমাধান করার আর এমন সব উপকারী তথ্য পেতে অবশ্যই আমাদের সাথে থাকবেন।

Nironjon Roy

হ্যালো পাঠক, আমি Roy. আমি দীর্ঘদিন থেকে বাংলা কন্টেন্ট রাইটিং এর কাজ করে আসছি। আমি যথাযথ চেস্টা করি নিজের জ্ঞানটুকু অন্যের মাঝে বিলিয়ে দেয়ার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button