জীবনধারাসরকারী সেবা

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার উপায়

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ রয়েছেন, যাদের জন্ম নিবন্ধনে বিভিন্ন রকমের ভুল আছে। যাদের এই জন্ম নিবন্ধনের নানা রকম সমস্যা আছে, তারা বেশ চিন্তায় পড়ে যান। যদি আপনার জন্ম নিবন্ধনে কোন ভুল থাকে তাহলে কোন প্রকার চিন্তা করার দরকার নেই। কারণ এখন আপনি চাইলে নিজের ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে পারবেন। আর যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন ভুল থাকে এবং আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে চান, সেক্ষেত্রে আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য অনেক বেশি হেল্পফুল হবে। কারণ আজকের এই আর্টিকেলে আমি জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার প্রতিটি বিষয়কে ধাপে ধাপে আলোচনা করব। তাই চেষ্টা করবেন আজকের পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ার।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগে?

যদি আপনার জন্ম নিবন্ধনে ভুল থাকে এবং আপনি সেই জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে চান তাহলে কিন্তু আপনাকে কিছু পরিমাণ টাকা ব্যয় করার প্রয়োজন পড়বে। কারণ বাংলাদেশ সরকার এর নীতিমালা অনুযায়ী কোন একটি জন্ম নিবন্ধন সংশোধন, কোন জন্ম নিবন্ধন পুনর্মুদ্রণের জন্য নির্ধারিত ফি প্রদান করতে হবে। আর কোন ধরনের জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগবে সেটা আমি নিচে উল্লেখ করে দিলাম।

  1. কোন একটি জন্ম নিবন্ধনে ধাকা তথ্য সংশোধন করার জন্য 100 টাকা ফি প্রদান করতে হবে।
  2. জন্ম তারিখ ব্যতীত যদি আপনার নাম কিংবা আপনার পিতা অথবা মাতার নাম, ঠিকানা ইত্যাদি সংশোধন করার প্রয়োজন হয়। তাহলে 50 টাকা প্রদান করতে হবে।
  3. যদি আপনার জন্ম নিবন্ধনে বাংলা এবং ইংরেজি যে কোন ভাষায় মূল জন্ম নিবন্ধন সনদ পত্রের তথ্য সংশোধন করার প্রয়োজন হয় সেক্ষেত্রে আপনাকে কোন প্রকার ফি প্রদান করতে হবে না।
  4. যদি আপনি আপনার জন্মনিবন্ধনের বাংলা অথবা ইংরেজি ভাষায় মূল সনদপত্র সনদপত্র বের করতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে 50 টাকা ফি প্রদান করতে হবে।
Read More:   জন্ম তথ্য সংশোধন করার নিয়ম

উপরের আলোচনায় আপনি যে ফি এর পরিমাণ দেখতে পাচ্ছেন, সেটি মূলত বাংলাদেশ সরকার থেকে নীতিমালা প্রদান করা হয়েছে। তবে আপনি যদি আপনার প্রয়োজনে কোন জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে চান, সেক্ষেত্রে আপনাকে 400 থেকে 500 টাকা পর্যন্ত ব্যয় করার প্রয়োজন পড়বে। কারণ সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী এই ফি এর পরিমাণ যেটাই থাকুক না কেন, আপনাকে এই পরিমাণ টাকা অবশ্যই ব্যয় করার প্রয়োজন হবে।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কি কি কাগজপত্র লাগে?

অনেকের মনে প্রশ্ন জাগে থাকতে পারে যে, তার জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য আসলে কোন ধরনের কাগজপত্র গুলো প্রয়োজন হবে। তবে এটা আসলে সঠিক ভাবে বলা সম্ভব না যে, আপনার জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য কোন কোন কাগজপত্র লাগবে। কেননা আপনার বিভিন্ন সমস্যার জন্য বিভিন্ন রকমের কাগজ পত্রের প্রয়োজন হতে পারে। এবং এই বিষয়টি সম্পর্কে পরিস্কার ভাবে জানার জন্য অবশ্যই আপনি আপনার ইউনিয়ন পরিষদে যোগাযোগ করবেন। এবং আপনার সমস্যার কথাটি উল্লেখ করার পর কি কি কাগজপত্র দিতে হবে সেটি সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পেয়ে যাবেন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার নিয়ম

যদি আপনার জন্ম নিবন্ধনে কোন প্রকার ভুল থাকে, তাহলে আপনি অনলাইনে মাধ্যমে খুব সহজেই সেই জন্ম নিবন্ধন এর সংশোধনের করার জন্য আবেদন করতে পারবেন। এবং আপনি যদি উপযুক্ত প্রমান সহ জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য আবেদন করতে পারেন। তাহলে সেই আবেদন করার পরবর্তী 15 দিনের মধ্যেই তা অনুমোদন হয়ে যাবে। তবে একটা কথা বলে রাখা ভালো যে জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের জন্য জন্ম তারিখ, টিকার কার্ড, জাতীয় পরিচয় পত্র, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স ইত্যাদি প্রমাণপত্র হিসেবে প্রদান করতে হবে।

তো চলুন এবার তাহলে জেনে নেওয়া যাক যে কিভাবে আপনার জন্ম নিবন্ধনে ভুল থাকা তথ্য গুলোকে সঠিক করার জন্য অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করবেন। নিচে আমি কিছু পদ্ধতি উল্লেখ করব, আপনাকে অবশ্যই সেই পদ্ধতি গুলো কে সঠিকভাবে অনুসরণ করতে হবে। না হলে আপনি সঠিক ভাবে অনলাইনের মাধ্যমে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য আবেদন করতে পারবেন না

  1. সর্বপ্রথম আপনাকে বাংলাদেশ জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। আপনি চাইলে এখানে ক্লিক করে সরাসরি সেই অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে পারবেন।
  2. যখন আপনি তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবেন তখন আপনি “জন্ম নিবন্ধন” নামের একটি অপশন দেখতে পারবেন। আপনাকে সেই অপশনে ক্লিক করতে হবে। যখন আপনি সেই অপশনে ক্লিক করবেন তখন আপনি “জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আবেদন“- নামের আরও একটি অপশন দেখতে পারবেন আপনাকে সেই অপশনে ক্লিক করতে হবে
  3. যখন আপনি উপরোক্ত দুটি ধাপ সঠিকভাবে অনুসরণ করবেন, তখন আপনার সামনে জন্ম নিবন্ধন এর 17 ডিজিটের নম্বর প্রবেশ করার একটি বক্স দেখতে পাবেন। এবং এখানে আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধনে থাকা 17 ডিজিটের নম্বর প্রবেশ করাবেন।
  4. এর পরবর্তী ধাপে আপনাকে নিবন্ধন কার্যালয় ঠিকানা বাছাই করতে হবে। সে ক্ষেত্রে আপনি আসলে যে ইউনিয়ন বা পৌরসভার আওতায় আপনার জন্ম নিবন্ধন করেছিলেন সেগুলো নির্বাচন করে এখানে সঠিক তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করবেন।
  5. নিজস্ব পৌরসভা কিংবা ইউনিয়ন এর তথ্য দেওয়ার সময় আপনি বেশ কিছু অপশন দেখতে পারবেন। যেমন, আপনার দেশ, বিভাগ, জেলা, সিটি করপোরেশন, পৌরসভা এবং অফিস আপনাকে অবশ্যই এই তথ্যগুলো সঠিক ভাবে দিতে হবে।
  6. এর পরবর্তী ধাপে আপনি আসলে কোন ধরনের ভুল তথ্যকে সংশোধন করতে চান সেটা আপনাকে সিলেক্ট করে দিতে হবে। মূলত এই অপশনে আপনি সব ধরনের তথ্য সংশোধন করার পদ্ধতি গুলো দেখতে পারবেন। এখন আপনি আসলে কোন ধরনের তথ্য সংশোধন করতে চান সেটা আপনাকে সিলেক্ট করে দিতে হবে।
  7. যখন আপনি উপরোক্ত ধাপ গুলো সঠিক ভাবে অনুসরণ করবেন। তখন আপনাকে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার কারণটা উল্লেখ করে দিতে হবে। এখানে অবশ্যই আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধনের ভুল থাকা সঠিক কারণটি উল্লেখ করে দিবেন। এর পাশাপাশি তারিখ সংশোধন করার জন্য অবশ্যই আপনাকে আপনার জন্ম সাল, মাস এবং তারিখ সিলেক্ট করে দিতে হবে।
  8. উপরে দেওয়া তথ্য গুলো সঠিক ভাবে প্রদান করার পর নিচের দিকে আসলে আপনার ঠিকানা দেয়ার একটি বড় ধরনের চার্ট দেখতে পারবেন। মূলত এখানে আপনি আপনার ঠিকানা গুলো সঠিকভাবে দেওয়ার চেষ্টা করবেন।
Read More:   জন্ম নিবন্ধন সংশোধন ফরম

তো আপনি যদি উপরের এই ৮ টি ধাপ সঠিক ভাবে অনুসরণ করেন, তাহলে আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য অনলাইনে আবেদন সফলভাবে করতে পারবেন। এবং যখন আপনি সফল ভাবে এই অনলাইন আবেদন করবেন তখন অবশ্যই আপনাকে সেই জন্ম নিবন্ধনের আবেদন টি ডাউনলোড করে নিতে হবে। আর সেটি পরবর্তী সময়ে প্রিন্ট করে নিতে হবে। যখন আপনি আপনার আবেদন কপি প্রিন্ট করবেন তখন সেই কফিটি আপনার ইউনিয়ন পরিষদ এর অফিসে এসে জমা দিবেন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন আবেদন এর বর্তমান অবস্থা জানার উপায়

যখন আপনি অনলাইনে মাধ্যমে আপনার জন্ম নিবন্ধন ভুল থাকা তথ্য গুলোকে সঠিক করার জন্য অনলাইনে আবেদন করবেন। তখন আপনার সেই অনলাইন আবেদনটি বর্তমানে কোন অবস্থায় আছে, আর কাজ কতটুকু অগ্রসর হয়েছে সেটি আপনি খুব সহজেই জেনে নিতে পারবেন। আর সেটি জানার জন্য আপনাকে বেশ কিছু কাজ করতে হবে। যেমন, প্রথমেই আপনাকে এই লিঙ্কে প্রবেশ করতে হবে তারপর আপনাকে আবেদনের ধরন নির্ধারণ করে দিতে হবে। এবং সবশেষে আপনি অ্যাপ্লিকেশন আইডি এবং আপনার জন্ম তারিখটি প্রদান করবেন। এই সবগুলো দেওয়ার পরে সবশেষে আপনি দেখুন নামক বাটনটিতে ক্লিক করলে আপনার জন্ম নিবন্ধন এর বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন।

Read More:   জন্ম তথ্য সংশোধন করার নিয়ম

Nironjon Roy

হ্যালো পাঠক, আমি Roy. আমি দীর্ঘদিন থেকে বাংলা কন্টেন্ট রাইটিং এর কাজ করে আসছি। আমি যথাযথ চেস্টা করি নিজের জ্ঞানটুকু অন্যের মাঝে বিলিয়ে দেয়ার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button