অনলাইন ইনকাম

১০০% নিশ্চিত গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস ২০২২

প্রযুক্তির ছড়াছড়ির কারণে গেমিং একটি জনপ্রিয় বিষয়। গেমিং ছাডা অনেকেই থাকতে পারে না এখন। অনলাইন গেইমে অনেকেই আসক্ত। কেমন হয় যদি এই আসক্তিকে কাজে লাগিয়ে অর্থ উপার্জন করা যায়? কথায় আছে অন্যের পকেটের টাকা নিজের পকেটে আনায় কষ্ট আছে। তেমনি গেমিং এর মাধ্যমে অর্থ আয় করাও কোন সহজ কাজ নয়। সুতরাং আজকের পোষ্টে আমাদের আলোচনার বিষয় ১০০% নিশ্চিত গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস ২০২২ (পেমেন্ট বিকাশ) সম্পর্কে। 

এক্ষেত্রে আপনাকে হতে হবে একজন দক্ষ গেমার। গেমিং একটি কঠিন কাজ আসলে। কিন্তু এটি আপনার মনোযোগ অনেকটাই কেড়ে নেয়। গেম খেলতে অনেক ধৈর্য্য ও আগ্রহের প্রয়োজন হয়। গেম খেলে আনন্দ পাওয়া যায়। তাই তো নতুন প্রজন্ম এত আসক্ত এই গেইমে।

গেইম খেলে কি আসলেই আয় করা যায়?

হ্যাঁ গেইম খেলে আসলেই অর্থ আয় করা যায়। সব কাজেই কষ্ট থাকে। কেউ আপনাকে সেধে পয়সা দিবে না। কষ্ট করে তা আনতে হবে। গেইম খেলাও কি কম কষ্টের? মজার বিষয় হচ্ছে গেইম খেলার মাধ্যমে আনন্দ যেমন তেমন উপার্জনও সত্যিই করা যায়। তবে আপনাকে এক্ষেত্রে একটি ভালো মোবাইল সেট অথবা কম্পিউটারের মালিক হতে হবে। আর আপনাকে বিশেষ কিছু গেইমে খুবই দক্ষ হতে হবে।

বিশেষ করে অনলাইন ভিত্তিক গেইম গুলোতে আপনাকে দক্ষ হতে হবে। কারণ এখন কেউ অফলাইন গেইম খেলার বাইরে অন্য খেলায় তেমন আগ্রহী না। আপনি খেয়াল করে দেখবেন লুডুও এখন অনলাইনে খেলা হয়। তাই আপনাকে একটি বা একাধিক অনলাইন গেইমে দক্ষ হতে হবে। যার মাধ্যমে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারেন। তাহলে বুঝতে তো পারছেনই অনলাইনে গেইম খেলে টাকা কামানো যায়।  তবে তা খুব বেশ সহজ কিছু না। বিশেষ নিয়ম কানুন ও মাধ্যম গুলো জানা থাকা চাই তাহলেই তা সম্ভব।

কিভাবে শুরু করবেন?

অনলাইনে গেইম খেলতে যেহেতু আপনাকে দক্ষতা অর্জন করতে হবে তাহলে আপনি প্রথমে কি গেইম খেলবেন তা ঠিক করে নিন। এবং প্রাথমিক ধারণা নিতে কিভাবে গেইমটি খেলতে হয় সেই সম্পর্কে ইউটিউবে ভিডিও দেখুন। অথবা গুগল হতে জেনে নিন। এছাড়া কেউ এই গেইমটি আগে খেললে তার কাছ থেকে প্রাথমিক ধারণা নিয়ে শিখে নিন কিভাবে খেলে। খেলা শুরু করলে আপনি একসময় দক্ষ হয়ে উঠবেন ।

এরপর আসা যাক কি মোবাইল প্রয়োজন হবে বা কি কম্পিউটার হলে খেলতে পারবে।  এখানে বলে রাখা ভালো যে দক্ষ গেমার হতে মোবাইল ফোনে খেলা যথেষ্ট নয়। এতে আপনার খেলতে যেমন অসুবিধা হবে তেমনি চোখেরও ক্ষতি হবে। তাই গেইম খেলতে আপনি কম্পিউটার ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে গেইমিং পিসি নিতে পারলে তা আরো ভালো। গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহারের মাধ্যমে হাই রেজুলেশনের গেইম গুলো আপনি খেলে অর্থ উপার্জন করতে পারবে। গেইমিং দিয়ে টাকা ইনকাম করতে হলে বেশি করে খেলতে হবে এবং দক্ষ খেলোয়াড়ের মত খুঁটিনাটি জানতে হবে। 

এখানে বলে রাখা ভালো আপনি মোবাইল দিয়ে গেইম খেলতে চাইলে তা কোন দামি সেট হতে হবে।নতুবা ভারি গেইম গুলো আপনার মোবাইল ফোনের ধারণ ক্ষমতার বাইরে হলে তা মোবাইলের ক্ষতি করতে পারে।

আমাদের ব্লগ সাইটে আপনি পড়ছেন ১০০% নিশ্চিত গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস ২০২২ (পেমেন্ট বিকাশ) এই সম্পর্কিত ব্লগ। চাইলে এ সম্পর্কিত আরও পড়ে আসুন- মোবাইল দিয়ে টাকা আয় বিকাশে পেমেন্ট app নিশ্চিত উপায়ে।

গেইম খেলতে কি কি লাগে?

আগেই জানতে হবে আপনাকে গেইম খেলার জন্যে কি কি লাগবে। আমি বলব গেইম খেলতে পথমেই লাগে ধৈর্য্য। আমরা সবাই জানি ফোনেই এখন গেইম খেলা যায় কিন্তু সেগুলো আর ইনকাম করার জন্যে যেই গেইম একি ব্যাপার নয়। আপনি এটা মনে করবেন না যে প্লে স্টোর হতে গেইম নামালাম আর খেলে ইনকাম করলাম। এত সহজ নয় ব্যাপারটা। তাই গেইম খেলার জন্যে আপনার কি কি লাগবে জানুন-

  • একটি ভালো মোবাইল ফোন, যেটি কমপক্ষে ৩০ হাজার টাকার বেশি হবে।
  • অথবা একটি ভালো মানের কম্পিউটার।
  • চাইলে আপনি জয়স্টিক ব্যবহার করে পারেন।এতে খেলার মজা বেড়ে যাবে।
  • একটি স্ক্রিন অথবা ওয়ারলেস এল ই ডি টিভিতে খেলতে পারেন।
  • ইন্টারনেট কানেকশন।
  • মোবাইল ফোনে অনেক্ষণ চার্জ থাকে এবং র‍্যাম রোম বেশি হতে হবে।

উক্ত জিনিস গুলো দিয়ে আপনি প্রাথমিক ভাবে ফেইমিং শুরু করতে পারেন। পরে আরো কিছু লাগলে তা নিজে থেকেই বুঝবেন।

গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস

সেরা কিছু অ্যাপস/গেম খেলে টাকা আয় করা যায় এই অর্থ উপার্জনকারী গেম অ্যাপগুলি ব্যবহার করে আপনি আপনার পছন্দের গেম খেলে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

এছাড়াও, কিছু অ্যাপ রয়েছে যা আপনাকে গেম খেলার পাশাপাশি অন্যান্য কিছু কাজের জন্য অর্থ প্রদান করে।আবার, এমন অনেক অ্যাপ রয়েছে যেগুলোতে আপনি আপনার বন্ধু এবং অন্যান্য লোকেদের আমন্ত্রণ জানিয়ে রেফারেল আয় করতে পারেন।

ভিতরে আসুন, একবার দেখুন এবং নিজেকে উপভোগ করুন! আপনি যে গেম বা অ্যাপ পছন্দ করেন না কেন, আপনি তা আপনার মোবাইলে ডাউনলোড করতে পারেন।

MPL – Mobile Premier League

এমপিএল মোবাইল প্রিমিয়ার লিগ অনেকেই ব্যবহার করেছেন এবং অনেককে এখানে গেম খেলে আয় করতে দেখা গেছে।আপনি গুগল প্লে স্টোর থেকে এই অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করতে পারবেন না। কারণ, এই অ্যাপগুলো প্লে স্টোরে না থাকলেও মোট প্রায় ১০০ মিলিয়ন+ ডাউনলোড এমপিএল হয়ে গেছে।

Read More:   অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করার উপায় ২০২২

এমপিএলের এই অ্যাপগুলোতে আপনি বিভিন্ন গেম দেখতে পাবেন। এখানে আপনি 40+ বিভিন্ন গেম পাবেন যেমন লুডো, রামি, পোকার, পাবজি, ফ্রি ফায়ার ইত্যাদি। প্রতিটি গেম খেলে অর্থ উপার্জন করা সম্ভব, তবে আপনাকে কেবল গেম খেলেই জিততে হবে না।

এখানে আপনি Paytm, Bank, Upi, Amazon Pay এর মাধ্যমে টাকা জমা করতে পারেন এবং বিজয়ী টাকাও তুলতে পারেন।আপনি যদি একটি টুর্নামেন্টে যোগ দেন এবং অনেক লোকের সাথে গেম খেলেন, তাহলে আপনি যদি টুর্নামেন্ট জিততে পারেন, আপনি প্রচুর অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

এছাড়াও, আপনি 1 V/s 1 হিসাবে অন্য লোকেদের সাথে গেম খেলে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। স্পিন এবং হুইল দিয়ে আপনি প্রতিদিন কিছু উপহার পাবেন, উদাহরণস্বরূপ, টোকেন ইত্যাদি। সবশেষে, যদি অন্য লোকেরা তাদের মোবাইলে MPL অ্যাপ ডাউনলোড করে আপনার রেফারেল কোডের জন্য সাইন আপ করে, তাহলে আপনি প্রতিটি রেফারেলের জন্য 50 থেকে 100 টাকা আয় করতে পারবেন।

“MPL – Mobile Premier League” এর জন্য একটি Google অনুসন্ধান করুন এবং আপনি অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটি পাবেন যেখানে আপনি অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারবেন। বলতে পারেন গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস গুলোর মধ্যে এটি অতি জনপ্রিয়।

Zupee Gold

অনেকে অনলাইনে অর্থ উপার্জনের জন্য একটি অ্যাপ হিসাবে zupee গোল্ড অ্যাপ ব্যবহার করে, তাই আপনি চাইলে এই গেমিং অ্যাপগুলি ব্যবহার করেও আয় করতে পারেন। আপনাকে এখানে বেশি কিছু করতে হবে না, আপনাকে শুধু অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে এবং সাইনআপ করতে হবে।

এখন, সরাসরি অর্থ উপার্জনের ক্ষেত্রে, আপনি Refer এবং Earn প্রক্রিয়া ব্যবহার করতে পারেন এবং আপনি আপনার নিজের রেফারেল কোডের মাধ্যমে অন্য লোকেদের আমন্ত্রণ জানিয়ে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। এছাড়া এখানে আয়ের প্রধান উপায় হচ্ছে কুইজ খেলে অর্থ উপার্জন করা।

আপনি প্রচুর কুইজ টুর্নামেন্ট পাবেন যেগুলোতে আপনাকে অংশগ্রহণ করতে হবে এবং আপনাকে সঠিকভাবে প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। প্রতিটি প্রশ্নের সাথে আপনাকে কিছু অপশন দেওয়া হবে যেখান থেকে আপনাকে সঠিক উত্তরটি বেছে নিতে হবে।

যদি আপনার স্কোর সর্বোচ্চ হয় তাহলে আপনি কুইজ টুর্নামেন্ট জিতবেন। Zupee গোল্ড ডাউনলোড করতে আপনাকে এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট (www.zupee.in) এ যেতে হবে।

Winzogames

এটি একটি দুর্দান্ত প্ল্যাটফর্ম যেখান থেকে গেম খেলে অনলাইনে আয় করা সম্ভব। আপনি গুগল প্লে স্টোর থেকে এই অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারবেন না। তবে অ্যাপটি এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট (www.winzogames.com) থেকে ডাউনলোড করা যাবে। গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস সমূহের মধ্যে এটি অন্যতম জনপ্রিয়।

ওয়েবসাইটটি দেখার সাথে সাথে আপনি মোবাইল নম্বর দেওয়ার জন্য একটি বক্স দেখতে পাবেন যেখানে আপনাকে আপনার মোবাইল নম্বর দিতে হবে। এখন, মোবাইল নম্বর দেওয়ার পরে, নীচের “Get Download Link On SMS” বাটনে ক্লিক করুন।

এতে, অ্যাপটি ডাউনলোড করার লিঙ্কটি আপনার দেওয়া মোবাইল নম্বরে SMS এর মাধ্যমে পাঠানো হবে। অ্যাপটিতে আপনি 70+ বিভিন্ন গেম পাবেন যা আপনি খেলতে পারবেন। যেমন, রামি, ক্যারাম, পুল, ফ্রি ফায়ার, ক্রিকেট, পেনাল্টি শট ইত্যাদি।

শুধুমাত্র একটি ক্লিকের মাধ্যমে, আপনি UPI, ব্যাঙ্ক ট্রান্সফার এবং PayTm এর মাধ্যমে আপনার জিতে নেওয়া টাকা তুলতে পারবেন।

Paytm First Games গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস

ভারতে অনেক জনপ্রিয় এবং বিখ্যাত কোম্পানি Paytm এর পক্ষ থেকে Paytm First Games আছে যা বিশ্বাস করার অনেক কারণ আছে। Paytm First Game থেকে টাকা তুলতে কোন সমস্যা নেই, কারণ এখানে আপনি আপনার Paytm অ্যাকাউন্ট লিঙ্ক করতে পারেন।

আর তাই, আপনি যে কোনো সময় আপনার পেটিএম অ্যাকাউন্টে উপার্জিত অর্থ পেতে পারেন। এছাড়াও, আপনি UPI এবং ব্যাঙ্ক ট্রান্সফারের মাধ্যমে আপনার বিজয়ী টাকা তুলতে পারবেন। এখানেও আপনি রামি, ফ্যান্টাসি, লুডো, মাল্টিপ্লেয়ার গেমস এবং টুর্নামেন্ট খেলে প্রচুর আয় করতে পারেন।

বলা হয় যে Paytm-এর তৈরি এই অ্যাপটি 100% আইনি, নিরাপদ এবং সুরক্ষিত। আপনি টুর্নামেন্ট এবং 1V1 গেম খেলে এবং সেখানে জিতে আয় করতে পারেন। প্রথমবার Paytm First Games অ্যাপ ডাউনলোড করার পরে, আপনাকে 50 বোনাস দেওয়া হবে।

আপনি এই অ্যাপটি সরাসরি গুগল প্লে স্টোর বা paytmfirstgames.com থেকে ডাউনলোড করতে পারেন।

Dream11

আপনি যদি ভাবছেন যে একটি গেম খেলে আপনি আরও অর্থ উপার্জন করতে পারেন, আমার উত্তর হবে “স্বপ্ন 11″। এই গেমটি অনেক দিন ধরেই জনপ্রিয় এবং অনেকেই এই গেমটি খেলছেন।

এটি একটি স্পোর্টস ফ্যান্টাসি লীগ অ্যাপ যেখানে আপনাকে স্পোর্টস গেম খেলে অর্থ উপার্জন করার সুযোগ দেওয়া হয়। এছাড়াও, রেফার অ্যান্ড আর্ন ইনকাম মডেলের মাধ্যমে, আপনি এই গেমটিতে অন্যান্য লোককে আমন্ত্রণ জানিয়েও আয় করতে পারেন।

গেমটিতে আপনাকে খেলোয়াড়দের নিজস্ব দল তৈরি করতে হবে এবং বাস্তব জীবনের ম্যাচের উপর নির্ভর করে আপনাকে একটি স্কোর দেওয়া হবে। আপনি যদি আরও পয়েন্ট স্কোর করতে পারেন, আপনি নগদ পুরস্কার জিততে পারেন।

এই গেমটি ডাউনলোড করতে আপনি Google Download Dream 11 লিখে সার্চ করতে পারেন, আপনি এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট পাবেন যেখান থেকে গেমটি ডাউনলোড করা যাবে।

আপনি www.dream11.com ওয়েবসাইট থেকে সরাসরি গেমটি ডাউনলোড করতে পারেন।

Qurekapro

আপনি যদি মোবাইলে কুইজ খেলে অর্থ উপার্জন করার কথা ভাবছেন, তাহলে আপনি অবশ্যই Qurekapro অ্যাপ ব্যবহার করে অনলাইনে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

কুরেকায় আপনি কুইজ গেম পাবেন যা আপনি সহজেই খেলতে পারবেন। তবে এই গেমে জিততে হলে আপনাকে ভালো সাধারণ জ্ঞান থাকতে হবে। কারণ, এখানে আপনাকে বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করা হবে।

এবং, যে ব্যক্তি সবচেয়ে সঠিক উত্তর দেবে, তার স্কোর হবে সর্বোচ্চ এবং তিনি কুইজ টুর্নামেন্ট জিতবেন এবং অর্থ পাবেন।গেমটি ডাউনলোড করতে আপনাকে এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে (www.qurekapro.com) যেতে হবে এবং আপনার মোবাইল নম্বর লিখতে হবে।

গেম ডাউনলোড লিংক আপনার প্রদত্ত মোবাইল নম্বরে SMS এর মাধ্যমে পাঠানো হবে।

Read More:   ১০০% নিশ্চিত অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২২ (ভিডিও সহ)

Nostra Gamus

Nostra Gamus গেমিং অ্যাপটি অবশ্যই সেরা উপার্জনকারী গেম হিসেবে অনেক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এখানে আপনি বিভিন্ন ধরনের গেম খেলতে পারবেন। উদাহরণস্বরূপ, ফ্যান্টাসি স্পোর্টস, কার্ড গেমস, লাইভ কুইজ, পুল, গো চিকেন গো ইত্যাদির মতো প্রচুর গেম রয়েছে।

এখানে অনেকগুলো বিভিন্ন টুর্নামেন্ট আছে যেখানে আপনি জিতলে টাকা পাবেন। আপনি সরাসরি এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট (www.nostragamus.in) থেকে অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করতে পারেন।

গেমিং ভিডিও রেকর্ড করে আরও ইনকাম

এতক্ষণ গেইমিং করে টাকা কামানোর প্রাথমিক ধারণা দিলাম। এখন জানিয়ে দিব কিভাবে কোথায় গেইমের মাধ্যমে টাকা কামানো যায়। আপনি নিশ্চিত থাকেন এই পথটা অতটা সহজে অর্জিত হবে না। এর জন্যে ইনভেস্ট করা যেমন প্রয়োজন তেমনি প্রয়োজন লেগে থাকার সক্ষমতা।

এমন হতে পারে যে আপনি গেইম খেলতে উস্তাদ কিন্তু আপনার টাকা ইনকাম করা পর্যন্ত ধৈর্য্য নেই। তাহলে আপনি গেইমিং এর মাধ্যমে টাকা ইনকামের আশা বাদ দিয়ে দিন। তাই আমরা বলব আপনি ভালো গেইমার এবং টাকা আয় হওয়ার শুরুর আগ পর্যন্ত আপনি ধৈর্য্য ধরতে পারলেই কেবল এতে সফল হবেন। এখন জেনে নিন কোথায় কিভাবে গেইম দিয়ে আয় করা যায়-

১. গেমিং করে ইউটিউব চ্যানেলঃ

পথমেই ইউটিউব এর কথা বলছি কারণ এই ভিডিও সাইটটি এখন বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে অন্যন্য দেশের গেমার সহ সব ধরণের মানুষের কাছে। তাই আমাদের কাছে থাকা গেইমিং এর মাধ্যমে উপার্জনের প্রথম পরামর্শ হলো আপনি একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলবেন।

আপনি সত্যি একজন সত্যিকারের গেমার হয়ে থাকেন তাহলে খেয়াল করলেই দেখবেন চীন, রাশিয়া,যুক্তরাষ্ট্রের বড় বড় গেমারদের ইউটিউবে রয়েছে বেশ কিছু জনপ্রিয় গেমার চ্যানেল। আমাদের সাব কন্টেন্ট ও পিছিয়ে নেই এই গেইমিং এর দুনিয়ায়৷ ইন্ডিয়ান খেলোয়াড়দের চ্যানেল আপনি ইউটিউব খুললেই দেখতে পাবেন। এই ক্ষেত্রে আপনি প্রথমে আপনার কোন গেইমে দক্ষতা আছে তার কঠিন ধাপ গুলোর উপর স্ক্রিন রেকর্ডার দিয়ে রেকর্ড করে ভয়েস দিবেন। বলে দিবেন আপনি কিভাবে কোন কৌশলে এটি পেরিয়েছেন। আপনার এর জন্যে কি কি কাজ করতে হয়েছে। তাহলেই আপনি সহজে ভিউয়ার পাবেন।

অন্য গেমাররা আপনার চ্যানেলে এসে কঠিন ধাপ পেরোনোর নিয়ম শিখে যাবে৷ এতে আপনার ইউটিউব থেকে ইনকাম আসবে। T-series একটি গানের চ্যানেল হলেও বর্তমানে এটির গেইমিং চ্যানেলও আছে। এটি ইন্ডিয়া দ্বারা পরিচালিত।  আপনি ওদের চ্যানেলে গেলে দেখবেন দক্ষ গেমার দের ভিডিও। তারা কিভাবে ভিডিও করে ভয়েস দিয়ে তা আপলোড করেছে। তাদের অনুকরণে আপনিও এটি করতে পারেন৷ এবং গেমিং এর মাধ্যমে আয় করতে পারেন।

Pewdiepie এমন একটি ইউটিউব চ্যানেল যারা ৫০০,০০ ডলারেরও বেশি আয় করে তাদের চ্যানেল থেকে। তাদের চ্যানেলে দেখবেন কত সাবস্ক্রাইবার তাদের। তারা দক্ষ গেইমার দিয়ে ইউটিউবে তা আপলোড করে। এবং বর্তমানে গেইমিং বেশি জনপ্রিয় হওয়াতে মানুষ তাদের ভিডিও দেখে থাকে। তেমনি আপনি যখন ধীরে ধীরে শুরু করবেন তেমন ভিউয়ার পাবেন না। পরবর্তীতে আপনার ভিউয়ার বাড়বে এবং আপনারও ইনকাম বাড়বে।

তাই আমার পরামর্শ হবে একটি নির্দিষ্ট গেইম থেকেই ভালো করে জানুন এবং দক্ষ হয়ে উঠে ধীরে ধীরে আপনার ইউটিউব চ্যানেলটি গড়ে ইনকাম করুন।

২. গেইমিং সাইট নির্মাণঃ

গেইমিং থেকে ইনকামের আরো একটি জজনপ্রিয় মাধ্যম হলো নিজের গেইমিং নিয়ে সাইট খোলা। এতে করে আপনি আপনার ব্লগিং সাইটে যে গেইমটি নিয়ে ভালো দক্ষতা রাখেন তা সম্পর্কে লিখবেন ও আপলোড করবেন। আপনি বিনা ইনিভেস্টমেন্টে সহজেই একটি সাইট খুলে শুরু করতে পারেন। এতে আপনি আপনার পছন্দ মত গেইমের রিভিউ দিবেন। খুঁটিনাটি সম্পর্কে ধারণা দিবেন। আপনি যা ভালো জানেন সে সম্পর্কে লিখে আয় করুন। কিভাবে খেললে ভালো কি কি নিয়ম আছে এটি নিয়ে লিখুন।

৩. গেমিং করে ফেইসবুক থেকে আয়ঃ

ফেইসবুক নেই এমন মানুষ মেলা ভার। বর্তমানে সবাই ফেইসবুক ব্যবহার করে আবার অনেকের ফেইসবুকে রয়েছে পেইজ। এই পেইজের মাধ্যমে ফেইসবুক থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন গেইমিং ভিডিও আপলোড করে। এটি অনেকটাই ইউটিউব এর মতই৷ কিন্তু এখানে আপনি শুধু আপনার আইডিতে দিলে তা কেউ দেখবে না।  গেইমিং এর সাথে জড়িত এমন একটি নাম বের করে তা দিয়ে পেইজ খুলুন ও আপনার পছন্দের গেইমের ভিডিও বানান তা আপলোড করুন। অথবা লেখালেখি করুন গেইমটি নিয়ে। অন্যদিকে আপনি আপনার বন্ধুদের দিয়েও ভিডিও বানিয়ে তা দিতে পারেন।

৪. টুর্নামেন্ট খেলে আয়ঃ

বর্তমানে গেইমিং এমন একটি জনপ্রিয় বিষয় যে কিছু গেইমের টুর্নামেন্টও হয়ে থাকে। পাবজি, ফ্রি ফায়ার, কল অফ ডিউটি ইত্যাদি গেইম গুলোর টুর্নামেন্ট তো এখন আন্তজার্তিক পর্যায়েও হচ্ছে। পুরষ্কারও পাচ্ছে মানুষ। তাই আপনি যখন গেইমিং এর মাস্টার হয়ে উঠবেন তখন আপনি টুর্নামেন্ট খেলে আয় করতে পারবেন। টুর্নামেন্ট চলাকালে রেজিষ্ট্রেশন করে অনলাইনে ফী দেয়ার মাধ্যমে এই সব টুর্নামেন্ট খেলা হয়।

এতে মনে রাখবেন আপনি যদি একজন দক্ষ খেলায়াড় না হোন তাহলে এই রিস্ক নিতে যাবেন না। কারণ একবার রেজিষ্ট্রেশন করলে আপনি আপনার টাকা আর ফেরত পাবেন না। তাই টুর্নামেন্ট এর মাধ্যমে ঘরে বসে ইনকাম করতে চাইলে আগে নিজের দক্ষতা বাড়ান

৫. গেইমিং স্টার গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস

একটি গেইম খেলতে খেলতে আপনি যখন দক্ষ হয়ে নিজেকে এই গেইমের মাস্টার ভাববেন তখন কোন মার্কেট প্লেইসে আপনি ভাড়ায় খেলতে পারেন। এতে আপনাকে ফাইবার, আপ ওয়ার্ক এর মত সাইট গুলোতে যেতে হবে এবং নিজের প্রোফাইল এডজাস্ট করতে হবে। আপনি যখন আপনার প্রোফাইলে নিজেকে একজন দক্ষ জান্তা গেইমার হিসেবে পরচয় দিতে পারবেন তখন আপনাকে টুর্নামেন্ট এ খেলার জন্যে সেখান থেকেই ভাড়া করা হবে।

কোন গেইম খেলে টাকা কামানো যায়?

নতুন প্রজন্মের যারা নতুন নতুন গেইম খেলছে তাদের কাছে এটি অবশ্যই একটি বড় প্রশ্ন যে কোন গেইম খেলে টাকা কামানো যায়। এটি আসলেই সত্যি যে অনলাইন বলুন আর অফলাইন। গেইম কিংবা যে কাজই হোক সেটির মাধ্যমে আসলে টাকা কামানো কখনোই সহজ নয়। আগেই বলেছে অন্যের টাকা নিজের পকেটে আনতে বিশেষ দক্ষতা লাগে। আর তা একদিনে অর্জন করা কোন ভাবেই সম্ভব না।

Read More:   অনলাইন বিজনেস আইডিয়া ২০২২ (১০০% সফলতা গ্যারান্টি)

দক্ষতা বা অভিজ্ঞতার একটি মূল্য রয়েছে। কেউ আপনাকে এমনি এমনি টাকা দিয়ে দিবে না। তাই যখন কেউ বলবে গেইম খেললে টাকা দিবে তখন বুঝবেন তার কোন না কোন লাভ এর পিছনে আছে। তাই সে আপনাকে টাকা দিতে চাচ্ছে। তাই টাকা যদি কামাতেই হয় তাহলে আপনি কষ্ট করে তা আয় করতে পারে। বর্তমানে অনলাইন গেইম গুলো খেলা হয় গ্রুপের মাধ্যমে। হয় এক সাথে সবাই বসে খেলে না হয় অনলাইনে একসাথে খেলে।

ফ্রি ফায়ার, পাবজি গেইমগুলো এখন খুব জনপ্রিয়। এসবের নাম বলতে পোলাপান যেনো পাগল।  তাই যদি গেইম খেলে আয় করার কথাই আসে এই গেইম গুলোর কথাই সবার আগে মাথায় আসবে।

কারা গেইম খেলে উপার্জন করতে সক্ষম?

একটা কঠিন সত্যি কথা বলি,সবাই গেইম খেলে উপার্জন করতে পারবে না। অনলাইনে ইনকামের যে কটি উপায় রয়েছে তার মধ্যে এটি একটি ঠিকাছে কিন্তু এটিও এত সহজ নয়। অনলাইনে যেকোন ইনকামের ক্ষেত্রেই যথেষ্ট মাথা খাটাতে হয়। অনেক্ষণ সময় কম্পিউটার অথবা মোবাইলে কাটাতে হয়। এতে মাথা যেমন ধরে থাকে তেমনি চোখেরও সমস্যা হয়। তাই সবাই চাইলেই এই কাজটি করতে পারে না।

আবার এই কাজ গুলো করতেও দক্ষতা অর্জন করা চাই।  তেমনি গেইমিং ও ব্যাতিক্রম না। গেইমিং দিয়ে আয় করতে হলে আপনাকে এতে দক্ষতা অর্জন করতে হবে। জানতে হবে গেইমের আগাগোড়া। নয় তো কেনো মানুষ  শুধু শুধু আপনার অনলাইন সাইট বা ইউটিউব চ্যানেল ভিউ করবে? তাই গেইমিং করে মাসে হাজার ডলারও কামানো সম্ভব হয় যখন আপনি এতে দক্ষ। আপনি ধৈর্য্য ধরে লেগে থাকবেন এবং এর পিছনে ইনভেস্ট করবেন।

তাই অনলাইনে ইনকাম করুন বললেই কারো ফাঁদে পা দিবেন না। আগে জানুন আপনার নিজের গণ্ডি কতিটুকু। আপনি যতটুকু জানেন ঠিক তত টুকুকেই কাজে লাগিয়ে ইনকাম করুন।

কেমন লাগছে আমাদের ব্লগ গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস সম্পর্কে অবশ্যই আপনার অভিমত কমেন্ট বক্সে জানিয়ে যাবেন। পড়তে থাকুন।

কেনো গেইম খেলে টাকা কামাবেন?

এটা অনেকের কাছে একটি বড় প্রশ্ন হতে পারে যে গেইম খেলেই কেন টাকা ইনকাম করতে হবে। এটা আসলে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নও। কারণ উত্তর একটাই আপনারা অনেকেই গেইম খেলে সময় নষ্ট করে নিজের ক্ষতি করছেন।  বাবার টাকা নয়-ছয় করছেন। এতে কোন লাভ হচ্ছে না। তাই সময়কে কাজে লাগাতে পারেন টাকা ইনকাম করে। কেননা অনেকে গেইমে এত আসক্ত হয়ে থাকে যে তারা এটিকে ছাড়তেও পারে না।

আবার গেইমের জন্যে নিজের মূল্যবান সময় খরচ করা ছাড়াও নিজের ক্যারিয়ার পড়াশোনা ধ্বংস করে দেয়। তাই এই গেইমকেই কাজে লাগালে কেমন হয় অর্থ উপার্জনের জন্যে? নিশ্চয়ই মন্দ নয়? আবার অনেক সময় অনেকে চাইলেও গেইমিং ছাড়তে পারছে না। তাই তাদের জন্যে উত্তম সমাধান হচ্ছে এর মাধ্যমে টাকা কামানো। তখন আপনার বিরক্তি যেমন আসবে  না তেমনি কিছু আয় তো করাই যায় এর দ্বারা। আবার অনেকেই আছে Free Fire এর মত গেইম গুলোতে ডায়ামন্ড কিনে ইনভেস্ট করে।

এছাড়া PubG এর মত গেইমে এক একটি জাদরেল আইডি করতে ইনভেস্ট করে অনেক টাকা। যদিও কম কম করে করা হয় বলে তা অনেকেরই গায়ে লাগে না। কিন্তু আপনি যদি শুরু থেকে হিসেব করে দেখেন তাহলেই কেবল বুঝতে পারবেন কত টাকা আপনি এই গেইমে দিয়েছেন।  তাইতো গেইমিং এর মাধ্যমে যা কিছু কামানো যায় মন্দ হয় না।

কত দিন লাগে গেইমিং দিয়ে টাকা কামাতে?

আপনি কখনোই ভাব্বেন না যে আজ খুলে কাল আপনি একটি গেইম থেকে হাজার হাজার টাকা কামাতে পারবেন। যদি ভেবে থাকেন তাহলে আমাকে ভেবে নিতেই হবে আপনি একজন বোকা। তাই তাড়াহুড়ো না করে লেগে থাকতে হবে। কারণ আপনাকে মনে রাখতে হবে এইটা কোন লুডুর মত খেলা নয় যে আপনি এক ম্যাচে বাজি ধরে অনেক টাকা ইনকাম করে নিবেন।

বরং আপনাকে যথেষ্ট ধৈর্য্য ধরে খেলে যেতে হবে। কারণ প্রথমেই আপনাকে একটি গেইমিং আইডি খুলতে হবে। আপনি আপনার গুগল প্লে এর মাধ্যমে আপনার আইডি গুলোকে সেইভ করে রাখতে পারেন। তা না হলে যে কোন সময় দুর্ঘটনা হতে পারে। আপনার ফোন হারিয়ে যাওয়া বা যে গেইম খেলবেন তার এপ্সটি আনইন্সটল হয়ে যেতে পারে। তখন আপনার আম ছালা দুটোই যাবে।

কিন্তু আপনার আইডি যদি গুগল প্লে গেইমস প্রোফাইলে সেইভ করা থাকে তাতে আপনি যে কোন সময় আপনার গেইম এপটি নামিয়ে নিয়ে আপনার আইডিতে লগইন করে আগের জায়গা থেকে খেলতে পারবেন। তাই লেগে থাকুন। নিজের দক্ষতা বাড়ান।

যেহেতু এতটুকু পর্যন্ত আমাদের ব্লগ গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস পড়ে চলে এসেছেন ধরেই নিচ্ছি আপনার কাছে ধৈর্য্য আছে। তবে আপনার দ্বারা সম্ভব। চাইলে এ সম্পর্কিত আরও পড়ে আসুন- 100% Earn money online by clicking ads 100 cashout is instantly নিশ্চিত উপায়ে।

উপসংহারঃ

উপরে উল্লেখিত উপায় গুলোর মধ্যে সব চেয়ে সহজ ভিডিও করে আপলোড করা। তবুও আপনি দক্ষতার সাথে হ্যান্ডেল করতে পারলে নিজের সময় কে কাজে লাগিয়ে যেই কাজ আপনার করতে ভালো লাগে তার মাধ্যমেই আমাদের বলে দেয়া উপায়ে আয় করতে পারেন। আশাকরি আপনার অনুসন্ধান অনুযায়ী গেম খেলে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস সম্পর্কিত এবং আয় করার আরও বিভিন্ন উপায় সম্পর্কিত জানতে পেরেছেন। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button