অনলাইন ইনকাম

গুগল এডসেন্স থেকে আয় করার উপায় ২০২২

বর্তমান যুগে ঘরে বসে আয় করতে গুগল এডসেন্স একটি সহজ উপায়। এটি একটি নিরাপদ দীর্ঘস্থায়ী আয়ের উৎসও হতে পারে কারো কারো জন্যে। অনলাইন আয়ের অন্যতম উৎস এখন গুগল এডসেন্স।  তাই এই পোষ্টে গুগল এডসেন্স থেকে আয় করার উপায় ২০২২ সম্পর্কে আজ আলোচনা করব।

গুগল এডসেন্স কি?

গুগল এডসেন্স হলো গুগল সাইটে বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের একটি প্রোগ্রাম৷ এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপন সেই সাইটে প্রদর্শন করবে তার মালিক টাকা পাবে।  গুগল তৃতীয় পক্ষের বিজ্ঞাপন দানের মাধ্যমে সাইট মালিকদের বা ব্লগারদের এই সুবিধা দিয়ে থাকে৷ এতে কন্টেন্ট এর ভিত্তিতে ৬৮ শতাংশ এবং ৫১ শতাংশ সাইটের ভিজিটরের উপর ভিত্তি করে অর্থ দেয়া হয়৷ সাইটে বিজ্ঞাপন প্রদানের জন্যে এডসেন্স এর কিছু শর্তপূরণ করতে হয়৷ যে কেউ এডসেন্সের মাধ্যমে অর্থ আয় করতে সমর্থ্য যদি সে এডসেন্স চালু করে। এবং নিয়ম মানে।

কেনো আপনি আয়ের পথ হিসেবে গুগল এডসেন্স বেচে নিবেন?

বাংলাদেশের অনেক ব্লগার ও সাইট মালিক বর্তমানে গুগল এডসেন্স থেকে আয় করে। মাসে হাজার ডলারও কোন কোন ব্লগার সাইট ইনকাম করে। এটি আয়ের জন্যে একটি সহজ মাধ্যম,নিরাপদও। কারণ এখানে আপনি কায়িক শ্রম করতে হবে না। বরং ঘরে বসে খুব সহজে আয় করা যায়।

ঘরে বসে আয় করার জন্যে এডসেন্স থেকে আয় করবেন। আপনি আপনার ব্লগ সাইটে ব্লগ দিবেন, এখান থেকে আপনার সাইটে ভিজিটর আসবে। এক্ষেত্রে আপনাকে নানান বিষয় নিয়ে লিখতে হতে পারে। প্রতি লিখায় বা ব্লগে কতজন ভিজিট করছেন কত জন সার্চ করছেন এসব দিক দেখে আপনি বিজ্ঞাপন দেয়ার,সুযোগ পাবেন।

বিজ্ঞাপন দেয়ার মত যোগ্য হলে এর থেকে আপনি একটি অংশ পাবেন। এর মত সহজ আয়ের উৎস আর কোথাও পাবেন না। তাই গুগল এডসেন্স থেকে আয় করতে পারেন। দেখা যাচ্ছে অন্য চাকরি করলে আপনি টাকায় পেমেন্ট পাবেন। আর এখানে আপনি ডলার কামাবেন।

আপনি এই পোষ্টে পড়ছেন গুগল এডসেন্স থেকে আয় করার উপায় ২০২২ এই সম্পর্কে। পাশাপাশি এই সম্পর্কিত নিম্নোক্ত আরও পোষ্ট পড়তে পারেন।

Read More:   ১০০% নিশ্চিত অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২২ (ভিডিও সহ)

গুগল কেনো এবং কিভাবে আপনাকে ইনকাম দিবে?

গুগল এডসেন্স হলো গুগলের বিজ্ঞাপন দেয়ার একটি প্রোগ্রাম। এতে গুগল বিজ্ঞাপন দাতা প্রতিষ্ঠান থেকে বিজ্ঞাপন নিয়ে তা কিছু শর্তের বিনিময়ে আপনার সাইটস দিবে। যখন কেউ আপনার সাইটের কোন ব্লগে ভিজিট করবে তখন সে সেই বিজ্ঞাপন দেখে ক্লিক করলে, আগ্রহী হলে সেটিতে ভিউ হবে এবং এর থেকে আপনার এডসেন্স একাউন্টে আপনার লভ্যাংশ যুক্ত হবে। এর মাধ্যমে আপনি আয় করবেন।

এক্ষেত্রে গুগল সাইট রিলেটেড বিজ্ঞাপনই দিয়ে থাকে।  তাই সংক্ষিপ্ত জাবা স্ক্রিপ্ট কোডের সমন্নয় গুগল থেকে আয় বাড়াতে পারে। বিজ্ঞাপন দেয়ার মূল উদ্দেশ্য ভিজিটরদের দৃষ্টি আকর্ষণ। তাই ভিজিটরা যখন উক্ত বিজ্ঞাপন দেখবে পণ্যের ব্যাপারে আগ্রহী হবে৷ এতে বিজ্ঞাপন দাতার পণ্যের বিক্র‍য় হবে। তাই গুগলে তারা এই বিজ্ঞাপন দিতে চায়। এই বিজ্ঞাপনের লভ্যাংশই আপনি পাবেন।

গুগল এডসেন্স থেকে আয় করার উপায়

গুগল আপনাকে সাথে সাথে এডসেন্স দিবে না এর জন্যে আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে। একটি নির্দিষ্ট পর্যায়ের পর আপনি এডসেন্স সাইন আপ করতে পারবেন৷ আপনার গুগল এডসেন্স একাউন্ট খোলার কিছু শর্ত রয়েছে। প্রথম কথা আপনাকে গুগলে একটি সাইট রাখতে হবে। সেখানে এমন কন্টেন্ট দিতে হবে যা গুগলের বিজ্ঞাপন দেখানোর উপযুক্ত হবে। যেমন, আপনার সাইট অবশ্যই গুগল রেঙ্কিং এ থাকতে হবে।

আপনার সাইট রেঙ্কিং এ আনতে গুগলে দেয়া আপনার কন্টেন্ট বা ব্লগের মান যাচাই করতে হবে। SEO, Readability, Copy content ইত্যাদি বিষয়ের উপর আপনার রেঙ্কিং পাওয়া নির্ভর করবে। আপনার ব্লগ যখন এসব বিষয় মানবে তখন আপনি এডসেন্স এর উপযোগী হবেন। তবে এই ক্ষেত্রে সাইটে গুগল এডসেন্স এর নূন্যতম মান অনুযায়ী কিছু ব্লগ থাকতে হবে। নির্দিষ্ট পরিমাণ ব্লক সংখ্যা থাকলেই কেবল আপনি এডসেন্স পাবেন।

এডসেন্স পাওয়ার পর আপনি আপনার ব্যাংক একাউন্ট এড করে নিবেন আপনি টাকা তুলতে পারবেন। এডসেন্স এর নিয়মাবলি দেখলেই আপনি এই ব্যাপারটি সম্পর্কে বুঝতে পারবেন।

কি পরিমাণ ইনকাম করা সম্ভব?

আপনি এডসেন্স থেকে কত ইনকাম করতে পারবেন তা নির্ভর করে আপনার কন্টেন্ট এ কেমন এবং কিসের বিজ্ঞাপন দেখানো হচ্ছে। সাধারণত কন্টেন্ট একটু বড় হলে তাতে দুই অথবা তিনটি বিজ্ঞাপন দেখানো যায়। আবার আপনি নিয়মিত কন্টেন্ট আপডেট করা। সেসব কন্টেন্ট রেঙ্কে থাকা, ভিজিটর কত হচ্ছে এসবের উপরও ইনকাম হতে পারে। তাই বলব কত ইনকাম করা সম্ভব তা নির্ভর করছে আপনার এক্টিভিটির উপর।

গুগল বিজ্ঞাপন থেকে জাতীয় রাজস্বর ৩০% আয় করে ছিলো তাহলে ভাবেন কি পরিমাণ আয় করা যায়। এডসেন্স এর মাধ্যমে এক ডলার থেকে হাজার ডলারও ইনকাম করা যায়।  প্রতিষ্ঠিত ব্লগার সাইট মালিক যারা  নিজেদের বড় বড় সাইট গুলো নিয়ে কাজ করে তারা মাসে লাখ টাকাও কামিয়ে থাকে কেবল এডসেন্স থেকে।

আপনি এই পোষ্টে পড়ছেন গুগল এডসেন্স থেকে আয় করার উপায় ২০২২ এই সম্পর্কে। পাশাপাশি এই সম্পর্কিত নিম্নোক্ত আরও পোষ্ট পড়তে পারেন।

Read More:   অনলাইনে ইনকাম বাংলাদেশী সাইট ২০২২ (বাচাইকৃত সেরা তালিকা)

উপকারিতা ও জটিলতা কি?

সব কিছুরই উপকারিতা এবং জটিলতা রয়েছে। জীবনে কোন কিছুই সহজে অর্জন করা যায় না। ঘরে বসে ইনকাম করবেন তাও যদি এডসেন্স এর মাধ্যমে এত সহজেই হয়ে যায় তাহলে তো হয় না। এখানেও বেশ কিছু জটিলতা রয়েছে। কিভাবে টাকা তুলবেন, এডসেন্স একাউন্ট কিভাবে আপনার সাইটে যুক্ত করবেন তা জানতে হবে। এই সম্পর্কিত তথ্য সম্পর্কে আপনাকে স্বচ্ছ ভাবে জানতে হবে। নিতে হবে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা। এ

ছাড়া অনেক সময় স্প্যাম কমেন্টের মাধ্যমে আপনার সাইটে ব্যাকলিংক তৈরী করে ফায়দা লুটতে পারে অন্য কেউ। আপনার কন্টেন্ট গুগলের নিয়ম না মানলে বহিষ্কার হতে পারেন গুগল থেকে। এছাড়া আরো নানা জটিলতা আছে এডসেন্স নিয়ে। আর উপকারীতার কথা বলতে গেলেও অনেক। এডসেন্স থেকে ঘরে বসেই একটি নিশ্চিত জীবিকা পেয়ে যেতে পারেন। যা আপনাকে সারাজীবন সার্পোট করবে। নিরাপদ ইনকাম মেয়ে দের জন্যে এটি। আপনি স্বাধীন ভাবে কাজ করে এই টাকা কামাতে পারেন। আরও পড়ুন: কাজ না করে ইনকাম বিকাশে প্রতিদিন

উপসংহার

পরিশেষে বলব গুগল এডসেন্স একটি জটিল বিষয় মনে হলেও আদতে টাকা ইনকামের জন্যে এর থেকে সহজ কোন উপায় আছে বলে মনে হয় না। এটি একটি স্থায়ী আয়ের উৎস। তাই দেরি না করে আপনিও একটি কার্যকর সাইট গড়ে তুলুন ও আয় করুন।  

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button